plastic pollution Enviornment Others 

প্লাস্টিক বর্জনের সচেতনতা : প্লাস্টিক বর্জনের উদ্যোগ

প্লাস্টিক বর্জনের সচেতনতা। প্লাস্টিক বর্জনের উদ্যোগ। পরিবেশ বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন,শুধুমাত্র কাগুজে আইন করে এর ব্যবহার বন্ধ করা যাবে না। নজরদারি না বাড়ালে এক্ষেত্রে সুফল পাওয়াও সম্ভব নয়। প্লাস্টিক উৎপাদন বন্ধ করাটা জরুরি। পুনর্ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিকই শুধু তৈরি হোক, এই আন্দোলনটা গুরুত্বপূর্ণ। উল্লেখ করা যায়,২০১৮ সালে ভারত বিশ্ব পরিবেশ দিবসে “বিট প্লাস্টিক পলিউশন” শ্লোগানকে সামনে রেখে চর্চা ও প্রচার শুরু করে। পুনর্ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক ব্যবহার করা হলে পরিবেশে বা বাস্তুতন্ত্রে বিরূপ প্রভাব পড়বে না। প্লাস্টিক ব্যবহারে একদিকে পশুপাখি বা জলজ প্রাণীর যেমন ক্ষতি হচ্ছে, তেমনি জলনিকাশি ব্যবস্থাও বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে ।

Read More
hot weather Breaking News Enviornment Others 

বিশ্বের গড় উষ্ণতা কতটা বেড়েছে জানেন ?

গোটা পৃথিবী জুড়ে বিশ্ব উষ্ণায়নের প্রভাব বেড়ে চলেছে। বিশেষজ্ঞদের পরিসংখ্যান অনুযায়ী উল্লেখ করা হয়েছে,গত দেড়শো বছরে বিশ্বের গড় উষ্ণতা ৮.৫ ডিগ্রি বেড়ে গিয়েছে। তার সঙ্গে সংযুক্ত হয়েছে বন-বনানী ধ্বংস করা,বিপুল পরিমাণে গাছ কাটা, জলাশয়-পুকুর ভরাট করা ও নগরায়ন গড়ে তোলা প্রভৃতি।
সব মিলিয়ে আবহাওয়ার বিরাট পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছে। পৃথিবী যত উত্তপ্ত হচ্ছে ততবেশি বরফ গলতে শুরু করেছে।

Read More
nature Education Enviornment Others World 

বিশ্ব পরিবেশ দিবসের আহ্বান

বিশ্ব পরিবেশ দিবস ৫ জুন । মানুষের সঙ্গে পরিবেশের অস্তিত্ব নিবিড়ভাবে জড়িয়ে। একদিকে শিল্প বিপ্লব ঘটেছে। অন্যদিকে বেড়েছে পরিবেশ দূষণ। সেই বিষয়টি মাথায় রেখেই এই বিশেষ দিনটি পালিত হয়ে থাকে। ১৯৭৩ সাল থেকে এই দিনটি পালিত হয়ে আসছে। ১৯৭৪ সালে “একমাত্র পৃথিবী” স্লোগান দিয়ে প্রথমবার বিশ্ব পরিবেশ হিসেবে পালিত হয়েছিল। প্রতি বছর নির্দিষ্ট একটি থিম থাকে। যেমন এ বছর অর্থাৎ ২০২৪ সালে থিম ছিল-ভূমি পুনরুদ্ধার,মরুকরণ এবং খরা স্থিতিস্থাপকতা” । রাষ্ট্রসঙ্ঘের পরিসংখ্যান অনুযায়ী উল্লেখ করা হয়েছে, এই গ্রহের ৪০ শতাংশ পর্যন্ত ভূমি ক্ষয়প্রাপ্ত হয়েছে। যা সরাসরি অর্ধেক জনসংখ্যাকে প্রভাবিত করে চলেছে।

Read More
Breaking News Enviornment 

মে মাসে বাংলার বুকে কেন ঘনঘন আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড়? আয়লা, আমফান, ইয়াসের পর এবার রেমাল!

বারবার কেন মে মাস? গত কয়েক বছর ধরে মনে হচ্ছে, মে মাস যেন বাংলার জন্য বিপর্যয়ের সময়কাল। ২০০৯ সালের ২৫ মে আছড়ে পড়েছিল ঘূর্ণিঝড় আয়লা। ২০১৯ সালের ৩ মে ফণী, ২০২০ সালের ২০ মে আমফান এবং ২০২১ সালের ২৬ মে ইয়াস। আর এবার ২০২৪ সালের মে মাসেও ঘূর্ণিঝড় রেমাল। কারণ কী? বিশেষজ্ঞদের মতে, মে মাসে বেশ কিছু কারণ একসাথে মিলে এই ঘটনার জন্য দায়ী। প্রভাব এই ঘূর্ণিঝড়গুলো বাংলার উপকূলীয় এলাকায় প্রচণ্ড ক্ষয়ক্ষতি করে। ঝড়ো হাওয়া, ভারী বৃষ্টি, জলোচ্ছ্বাস, বন্যা – সব মিলিয়ে ব্যাপক বিপর্যয়ের সৃষ্টি হয়। সতর্কতা ও প্রস্তুতি ঘূর্ণিঝড়ের…

Read More
Enviornment 

দিব্যজ্যোতির সঙ্গে প্রেম নাকি শুধুই বন্ধুত্ব? আসল সত্যিটা কী? জানালেন সৌমিতৃষা

টলি জগতের অভিনেতা দিব্যজ্যোতি দত্ত হল এমন একজন যার সঙ্গে টলিপাড়ার একাধিক অভিনেত্রীর নাম নানান সময় শোনা গেছে।অনুরাগের ছোঁয়া ধারাবাহিকে ভাইয়ের বউয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন সৌমিলি, যার সঙ্গে দিব্যজ্যোতির প্রেমের চর্চা মাঝেমধ্যেই শোনা যাচ্ছিল।সমাজমাধ্যমে তাদের নানা রকম ছবি দেখে নানা রকম জল্পনা মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে।তবে এই বিষয়ে অভিনেতা সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন যে এই বিষয়টি মোটেও সত্যি নয় যখনই কোন মেয়ের সঙ্গে তার ছবি দেখা যায় তখনই সেটা নিয়ে ভুল ধারণা সৃষ্টি হয়। এর আগে আবার দিব্যজ্যোতি নামের সঙ্গে নাম জড়িয়ে ছিল অনুরাগের ছোঁয়া ধারাবাহিকের নায়িকা স্বস্তিকার সঙ্গে। এই বিষয়েও…

Read More
forests Breaking News Enviornment Others 

পরিবেশ বাঁচাতে চাই বনভূমির লক্ষ্যপূরণ

গরম ও উষ্ণতা বাড়ছে। দাবদহে বা রোদের তেজে জীবন অতিষ্ঠ । সাধারণ মানুষের নাজেহাল অবস্থা। পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা বলছেন,সুস্থ সহায়ক পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য কার্বন নির্গমনের পরিমাণ কমানোর জন্য ব্যবস্থা নিতে হবে। এই প্রতিকূল অবস্থা থেকে বাঁচতে এক-তৃতীয়াংশ বনভূমির লক্ষ্য পূরণ করা প্রয়োজন। অবাধে গাছ কাটা হচ্ছে। ধ্বংস হচ্ছে বনভূমি। জলাশয় বুজিয়ে দেওয়া হচ্ছে নির্বিচারে। এই অবস্থায় প্রকৃতি বিরূপ হয়ে চলেছে। প্রচণ্ড গরমে জনজীবন বিপর্যস্ত। তাপমাত্রা বাড়তে বাড়তে কোথাও কোথাও তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি উঠেছে। পরিবেশবিদরা এক্ষেত্রে বলছেন,পরিবেশে গাছপালা কমে যাওয়ার কারণে গরমের তাপমাত্রা বেড়েই চলেছে। গরমে অস্বস্তি বাড়ছে। সুস্থভাবে বাঁচতে গেলে…

Read More
biotechnologist Education Enviornment Others 

জীবপ্রযুক্তিবিদদের চাহিদা বাড়ছে

বায়োটেকনোলজি নিয়ে পড়াশুনা করলে কাজের সুযোগ অনেকটাই বেড়েছে। বায়োটেকনোলজি বা জীবপ্রযুক্তি বিদ্যা হল-জীব বিজ্ঞানের সঙ্গে জৈব প্রযুক্তির মেলবন্ধন। জীবপ্রযুক্তিবিদদের চাহিদা আধুনিক সভ্যতায় বেড়ে চলেছে। আমাদের পশ্চিমবঙ্গে বায়োটেকনোলজির স্নাতকোত্তর নিয়ে লেখাপড়ার চল বেড়েছে। কাজের ক্ষেত্রে জীবপ্রযুক্তিবিদদের চাহিদা কেন বাড়ছে তার একটা উদাহরণ তুলে ধরা যেতে পারে। দেশের জনসংখ্যা বাড়ছে তার তুলনায় চাষের জমি কমছে। ফলে কম জমিতে খাদ্য সংস্থানের জন্য বেশি উৎপাদনের প্রয়োজন পড়ছে। বিভিন্ন কৌশলকে কাজে লাগিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধির দিকে নজর দিতে হয় বায়োটেকনোলজিস্টদের। করোনাকালে অতি দ্রুত প্রতিষেধক আবিষ্কারের নেপথ্যে বায়োটেকনোলজির বিশেষ অবদান রয়েছে। বায়োটেকনোলজিস্টদের কাজের পরিসর তাই বাড়ছে।

Read More
horizon Education Enviornment Others 

মৃত্তিকার হরাইজন আসলে কী ?

মৃত্তিকার হরাইজন (soil Horizon)বলতে কী বোঝায় জানা আছে কি ? ভূগোলের একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। ভূগোলের বেশ কিছু পরীক্ষায় এই প্রশ্নটি সাধারণত এসে থাকে। মৃত্তিকা স্তরায়নের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ এটি । মৃত্তিকার উপর থেকে নিচের দিকে মূল শিলা পর্যন্ত খাড়াভাবে মাটি কাটলে কতকগুলি স্তর চোখে পড়বে। এই স্তরগুলিকে একত্রে মৃত্তিকার স্তরায়ন বলা হয়। এর এক একটি স্তরকে হরাইজন বলা হয়ে থাকে।

Read More
Enviornment 

‘ভবানী পাঠক’ রূপে প্রসেনজিৎ: দেবী চৌধুরানী থেকে সামনে এলো প্রসেনজিৎ-এর প্রথম লুক!

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ‘ভবানী পাঠক’ লুকে ধরা দিতেই তুঙ্গে উঠেছে দর্শক-অনুরাগীদের উত্তেজনা। বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বিখ্যাত উপন্যাস ‘দেবী চৌধুরাণী’ অবলম্বনে নির্মিত এই সিনেমায় শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ‘দেবী চৌধুরাণী’র চরিত্রে অভিনয় করছেন। ১৬ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে এই সিনেমার শুটিং। গেরুয়া বসন, কপালে রক্ততিলক, গলায় রুদ্রাক্ষের মালা, মাথায় লাল কাপড়ের ফেট্টি আর মুখে ‘জয় ভৈরবী’ ধ্বনি – এই রুপে ‘ভবানী পাঠক’ চরিত্রে প্রসেনজিৎকে দেখে মুগ্ধ দর্শক।শুভ্রজিৎ মিত্র পরিচালিত এই সিনেমায় বিবৃতি চট্টোপাধ্যায়, দর্শনা বণিক, সব্যসাচী চক্রবর্তী, অর্জুন চক্রবর্তী -এর মতো অভিনেতারাও অভিনয় করছেন।শ্যাম কৌশল, বলিউডের বিখ্যাত অ্যাকশন ডিরেক্টর, এই সিনেমার অ্যাকশন দৃশ্য পরিচালনা করবেন।’দেবী…

Read More
biotrig and india Education Enviornment Others 

বায়োট্রিগ(Biotrig) নিয়ে সংবাদমাধ্যমে আলোচনা চলছে। এ বিষয়ে অনেকের কৌতূহল রয়েছে। আভ্যন্তরীন বায়ুদূষণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পদক্ষেপ বলা হচ্ছে । মাটির স্বাস্থ্য উন্নত করতে ব্যবস্থা। গ্রামীণ ভারতে ক্লিন এনার্জি তৈরি করতে এর ব্যবহার।

Read More